টিপস

কিভাবে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করা যায়

কিভাবে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করা যায় এ নিয়ে বিস্তারিত তথ্য সম্বলিত আমার আজকের বিশেষ অনুচ্ছেদ। এই অনুষ্ঠান থেকে আপনারা খুব সহজেই অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন সম্পর্কিত বিভিন্ন তথ্য পেয়ে যাবেন। আপনারা যারা অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন করার পদ্ধতি সম্পর্কে তথ্য জানতে চেয়ে অনলাইনে সার্চ করে থাকেন তাদের জন্য বেশ উপকারে আসবে আমার এই অনুচ্ছেদটি। তাহলে চলুন শুরু করা যাক।

অনলাইন জন্ম নিবন্ধন

ডিজিটাল বাংলাদেশে সবকিছুতেই ইলেক্ট্রনিক সেবা সংযুক্ত করা হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় পুরনো পদ্ধতির জন্ম সনদকে আধুনিকায়ন করার জন্য অনলাইন জন্ম নিবন্ধন সনদ চালু করা হয়েছে। বর্তমানে পুরনো জন্ম সনদকে অনলাইন করা বাধ্যতামূলক।অন্যথায় আপনি অনেক সেবা থেকে হয়ে যাবেন বঞ্চিত।কিন্তু অনেকেই জানেন না কিভাবে জন্ম সনদ অনলাইন করতে হয়। এই সমস্যার সমাধান করার আমার আজকের এই দিক নির্দেশনামূলক অনুচ্ছেদ। আশাকরি এই অনুচ্ছেদ থেকে আপনার উপকৃত হবেন।

হাতের লেখা জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম

পুরাতন জন্ম নিবন্ধনধারী অনেকেই বিভিন্ন কাজে জন্ম সনদ নিয়ে বেশ ঝামেলায় পড়ে থাকেন।এজন্য তারা এর সমাধানের পথ খুঁজে বেড়ান। আমার আজকের এই অনুচ্ছেদ পাঠ করলে আশাকরি আপনাদের সমস্যার সমাধান পেয়ে যাবেন। এজন্য সর্বপ্রথম আপনাকে দেখে নিতে হবে যে আপনার জন্ম নিবন্ধনটি অনলাইন করা আছে কিনা। অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন চেক করার জন্য আপনাকে লিংকে প্রবেশ করতে হবে। এরপর বিভিন্ন ধাপ অনুসরণ করে আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করা আছে কিনা চেক করতে পারেন।

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন চেক  লিংক থেকে আপনি সহজেই আপনার জন্ম নিবন্ধন তথ্যটি যাচাই করতে পারেন। যদি আপনার পুরাতন জন্ম নিবন্ধনটি অনলাইন করা না থাকে সেক্ষেত্রে আপনাকে একটি জটিল প্রক্রিয়ার মাধ্যমে অনলাইন করানোর জন্য ইউনিয়ন পরিষদে অথবা পৌরসভায় বারবার ছোটাছুটি করতে হয়। অনেকেই এই ঝামেলা পছন্দ করেন না। আপনাদের সুবিধার জন্য আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করব কিভাবে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করা যায়।

Related Articles

এজন্য আপনাকে প্রথমে পুরাতন জন্ম নিবন্ধনটি অনলাইন  লিংকে প্রবেশ করতে হবে। এই সাইটটিতে প্রবেশ করার পর আপনি একটি ইন্টারফেস পাবেন সেখানে তিনটি ঘর দেখা যাবে। প্রথম ঘরে জন্মস্থান দ্বিতীয় ঘরে স্থায়ী ঠিকানা এবং তৃতীয় ঘরে বর্তমান ঠিকানা দেখা যাবে। এগুলোর মধ্যে যেকোনো একটি সিলেক্ট করতে হবে। আপনি যে জায়গা থেকে আপনার জন্ম সনদ সংগ্রহ করতে যাচ্ছেন সেই ঠিকানাটি দিতে হবে। পরবর্তী বাটনে ক্লিক করলে আপনি আরেকটি ফর্ম দেখতে পাবেন। ফর্মটি সঠিকভাবে পূরণ করে দেয়া আবশ্যক। অতঃপর আপনার কাছে এগুলো প্রমাণ স্বরূপ কিছু কাগজপত্র চাওয়া হবে। কাগজপত্রগুলো আপনার কাছে আছে এটা প্রমাণ করার জন্য আমার কাছে ডকুমেন্ট গুলি আছে এই বাটনে ক্লিক করতে হবে। সঠিকভাবে পূরণ করার পরে পরবর্তী বাটনে ক্লিক করতে হবে। জাতীয় পরিচয় পত্র নম্বর চাওয়া হবে যদি থাকে দিবেন, না থাকলে দেয়ার প্রয়োজন নেই। এরপর আরেকটি নতুন ফর্ম চলে আসবে। সেখানে আপনার পিতার তথ্য এবং মাতার তথ্য চাওয়া হবে। সঠিকভাবে তথ্য দিয়ে পরবর্তী বাটনে ক্লিক করতে হবে।

অতঃপর এই ধাপ পার হয়ে আপনাকে জিজ্ঞেস করা হবে যে আপনি কার জন্য আবেদন ফরম পূরণ করলেন। সেখানে নিজের হলে নিজ এবং অন্য কারোর জন্য হলে অন্যান্য লিখে আপনার নাম ঠিকানা ফোন নম্বর ইত্যাদি সংযুক্ত করতে হবে। এই ধাপ শেষে আপনাকে জন্মস্থান ও জন্ম তারিখের তথ্য প্রদান করতে হবে। অতঃপর সংযোজন বাটনে ক্লিক করে আপনাকে জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট কোন সরকারি কর্মকর্তা দ্বারা প্রত্যয়ন করে নিতে হবে সেই সাথে এমবিপিএস ডাক্তারের করা প্রত্যয়ন সার্টিফিকেট জমা দিতে হবে। ছোটদের ক্ষেত্রে টিকা কার্ড জমা দেয়া যাবে। তারপর পরবর্তী বাটনে ক্লিক করতে হবে। এ পর্যায়ে আপনার পূরণকৃত ফর্মটির সবগুলো তথ্য আপনি দেখতে পারবেন। সবগুলো তথ্য যাচাই করে নিয়ে সাবমিট বাটনে ক্লিক করলে আপনার আবেদনটি সম্পন্ন হবে। আপনি চাইলে আপনার আবেদন পত্রটি প্রিন্ট করে নিতে পারেন।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম ২০২৪

আপনারা যারা নতুন জন্ম নিবন্ধন করিয়েছেন বা করাতে চাচ্ছেন তারা অনেক সময় ইউনিয়ন পরিষদ কিংবা পৌরসভায় ধরণা দিয়েও সফল হতে পারেন না। এই ঝামেলা দূর করার জন্য আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করব কিভাবে আপনি ঘরে বসে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করতে পারবেন। জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার জন্য আপনাকে লিংকে প্রবেশ করে সঠিক তথ্য দিয়ে ভেরিফিকেশন করতে হবে। এই লিংক থেকে আপনি খুব সহজেই অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন আবেদন করতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন আবেদন

পুরাতন জন্ম নিবন্ধন কিংবা নতুন করে জন্ম নিবন্ধন যাই হোক না কেন এজন্য আপনাকে প্রথমে অনলাইনে আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে। অনলাইনে কিভাবে আবেদন ফরম পূরণ করবেন, আবেদন ফরম পূরণ করার জন্য কি কি কাগজপত্র প্রয়োজন হবে, কোন লিংকে গিয়ে আবেদন ফরম পূরণ করবেন, পূরণ করার পরবর্তী ধাপ কি ইত্যাদি বিভিন্ন প্রশ্ন নিয়ে আজকের অনুচ্ছেদে বিস্তারিত তুলে ধরলাম। এই অনুচ্ছেদ থেকে আপনারা খুব সহজেই আপনাদের জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম সম্পর্কিত বিভিন্ন তথ্য ও প্রাপ্ত এবং দিক নির্দেশনা পেয়ে যাবেন। মনে রাখতে হবে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার ক্ষেত্রে আপনাকে সঠিক তথ্য সরবরাহ করতে হবে। আপনার সরবাহকৃত তথ্যটি কোন কারণে ভুল প্রমাণিত হলে আপনার আবেদন পত্রটি বাতিল বলে গণ্য হবে। তাই অবশ্যই মনে রাখবেন কাগজপত্র সামনে নিয়ে তথ্য পূরণ করার।

পরিশেষ

ডিজিটাল বাংলাদেশ সবকিছুর সাথে তাল মিলিয়ে চলার জন্য পুরাতন জন্ম নিবন্ধনকে অনেক সময় অনলাইন করার প্রয়োজন পড়ে কিংবা নতুন জন্ম নেওয়া শিশুকে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধনের আবেদন করার প্রয়োজন পড়ে। সেক্ষেত্রে আপনাদেরকে পড়তে হয় নানাবিধ সমস্যায়। এই সমস্যা দূর করার জন্য আমার আজকের অনুচ্ছেদে কিভাবে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করা যায় এই বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য উপস্থাপন করলাম। আশা করি আমার এই অনুচ্ছেদ থেকে আপনারা উপকৃত হয়েছেন। চাইলে আমাদের অন্যান্য লেখাগুলো পড়ে দেখতে পারেন। সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *