ট্রেনের সময়সূচিভ্রমণ

ঢাকা টু কিশোরগঞ্জ ট্রেনের সময়সূচী ২০২৪, ট্রেনের তালিকা, ভাড়া, টিকেট

সুপ্রিয় সুধী, আপনাদের সকলকে স্বাগতম আমাদের আজকের এই অনুচ্ছেদে আপনাদের সামনে ঢাকা টু কিশোরগঞ্জ ট্রেনের সময়সূচী নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। ঢাকা থেকে কিশোরগঞ্জ ট্রেনের সময় ভাড়া এবং অনলাইন টিকিট কাটার নিয়ম নিয়ে আজকের এই অনুচ্ছেদ আপনাদের সামনে শেয়ার করা হয়েছে।

ঢাকা থেকে কিশোরগঞ্জে যেতে আপনারা রেল সেবা নিতে পারেন। ঢাকা থেকে কিশোরগঞ্জ ১০৮ কিলোমিটার দূরত্বে এই রাস্তায় কিন্তু ট্রেন প্রতিনিয়ত চলাচল করে। কিশোরগঞ্জ ঢাকা থেকে কিশোরগঞ্জ যেতে সময় লাগে মাত্র চার ঘন্টা। যেখানে বাজে যেতে অনেক বেশি সময় লাগলো ট্রেনে চার ঘন্টায় আপনি অনেক আরাম ও শান্তিদায় কভাবে গ্রহণ করতে পারবেন কিশোরগঞ্জের উদ্দেশ্যে। কিশোরগঞ্জ যেতে ঢাকা থেকে প্রতিনিয়ত এগারো সিন্ধুর প্রভাতী ৭৩৮এগারো সিন্ধুর  গোধূলি ৭৪৯ এবং কিশোরগঞ্জ এক্সপ্রেস ৭৮১ নামে তিনটি ট্রেন প্রতিনিয়ত যাতায়াত করে। এই ট্রেনগুলো অনেক বিলাসবহুল ও আরামদায়ক আপনার ভ্রমণ হবে শান্তিপূর্ণ ও সুশৃংখল।

ঢাকা কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে কিশোরগঞ্জ যাতায়াতের জন্য এসব ট্রেন নির্ভরযোগ্য নিরাপদ এবং আরামদায়। সব ট্রেনের আসন ব্যবস্থা অনেক উন্নত। ট্রেনে  এসি ,নন এসি ,শোভন  চেয়ার প্রভৃতি ক্যাটাগরির আসন ব্যবস্থা রয়েছে। কমলাপুর রেল স্টেশন থেকে কিশোরগঞ্জ যাতায়াতের জন্য আমরা ট্রেন যোগাযোগ ব্যবস্থায় সন্তুষ্ট ।

আজকের এই অনুষ্ঠানে ঢাকা টু কিশোরগঞ্জ ট্রেনের সময়সূচী ট্রেনের তালিকা ভাড়া ও টিকিট নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।

Related Articles

এগারো সিন্ধুর প্রভাতী

এগারো সিন্ধু প্রভাতী ট্রেনটি বাংলাদেশের কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে কিশোরগঞ্জ পর্যন্ত চলাচল করি একটি আন্তঃনগর ট্রেন। ট্রেনটি ১৯৮৭ সালে যাত্রা শুরু করে ঢাকা থেকে কিশোরগঞ্জের উদ্দেশ্যে। এগারো সিন্ধুর প্রভাতী ট্রেনটি সকাল ৭:১৫ মিনিটে ঢাকা কমলাপুর থেকে কিশোরগঞ্জের উদ্দেশ্যে রওনা দেয় এবং কিশোরগঞ্জে পৌঁছায় বেলা ১১:১৫ মিনিটে।
পরবর্তীতে ট্রেনটি রাতে কিশোরগঞ্জ থেকে ৬:৩০ মিনিটে রওনা দিয়ে রাত দশটায় 40 মিনিটে ঢাকা কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে পৌছায় । এর সাপ্তাহিক ছুটি বুধবার।

এগারো সিন্ধুর গোধূলী

এগারো সিন্ধুর গোধূলি ট্রেনটি বাংলাদেশের ঢাকার রোড থেকে কিশোরগঞ্জ রুটে চলাচল করে একটি আন্তঃনগর ট্রেন ।এই ট্রেনটি ১৯৮৭ সাল থেকে যাত্রা করে এবং ২০০২ সালের ১১মে  এগারো সিন্ধুর গোধূলি হয়ে চলাচল শুরু করে। এই ট্রেনটি সন্ধ্যা ৬টায ৪০ মিনিটে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে কিশোরগঞ্জের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়ে কিশোরগঞ্জে পৌঁছে ১০টা ৪৫ মিনিটে। পরবর্তীতে ট্রেনটি কিশোরগঞ্জ থেকে ১২টায় ৫০ মিনিটে ছেড়ে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন পৌঁছায় ৫টায় ৫ মিনিটে ট্রেনটির সাপ্তাহিক ছুটি বুধবার।

কিশোরগঞ্জ এক্সপ্রেস

কিশোরগঞ্জ এক্সপ্রেস বাংলাদেশের রেলওয়ে একটি আন্তঃনগর ট্রেন ।এটি বাংলাদেশের কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে কিশোরগঞ্জ চলাচলকারী একটি আন্তঃনগর ট্রেন। এটি যাত্রা শুরু করে ১ ডিসেম্বর ২০১৩ সালে। ট্রেনটি কমলাপুর থেকে কিশোরগঞ্জের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করে ১০ টা ৪৫ মিনিটে এবং কিশোরগঞ্জে পৌঁছায়  ৩ টার দিকে। পরবর্তীতে কিশোরগঞ্জ থেকে ট্রেনটি ছাড়ে চারটায় এবং কমলাপুরে পৌঁছায় ৮ টা ১০ মিনিটে। ট্রেনটির সাপ্তাহিক ছুটি শুক্রবার। ট্রেনটি আরামদায়ক ও বিলাসবহুল ট্রেন।

ঢাকা টু কিশোরগঞ্জ ট্রেনের সময়সূচী ২০২৪

আপনাকে সামনে আজকের এই অনুষ্ঠান টি ঢাকা থেকে কিশোরগঞ্জ প্রতিনিয়ত চলাচলত তিনটি ট্রেনের সময়সূচী শেয়ার করা হয়েছে। ঢাকা থেকে  এগার সিন্দুর প্রভাতী এগার সিন্দুর গোধূলি এবং কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস চলাচল করে। এই ট্রেনগুলো কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে কিশোরগঞ্জের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়।

ট্রেনের নাম ছুটির দিন ছাড়ায় সময় পৌছানোর সময়
এগারো সিন্ধুর প্রভাতী(৭৩৭) বুধবার ০৭ঃ১৫ ১১ঃ১৫
এগারো সিন্ধুর গোধূলি(৭৪৯) না ১৮ঃ৪০ ২২ঃ৪৫
কিশোরগঞ্জ এক্সপ্রেস(৭৮১ শুক্রবার ১০ঃ৪৫ ১৫ঃ০০

ঢাকা থেকে কিশোরগঞ্জ ট্রেনের টিকিটের মূল্য (ভাড়া):

ঢাকা থেকে কিশোরগঞ্জ এ তিনটি ট্রেন প্রতিনিয়ত চলাচল করে। এই ট্রেন তিনটি অনেক আরামদায়ক বিলাসবহুল ও নান্দনিক। ট্রেনগুলোর যাত্রী পরিষেবা অনেক উন্নত এবং ট্রেনগুলো প্রশাসনিক কাঠামো ভালো। ট্রেন গুলোর আসন অনেক ভালো। ট্রেনগুলোতে কয়েক ক্যাটাগরি আসন ব্যবস্থা রয়েছে শোভন শোভন চেয়ার স্নিগ্ধা এসি এসি বার্থ। এ সকল আসন ক্যাটাগরি অনুসারে টিকিটের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে। এই অনুচ্ছেদে ঢাকা থেকে কিশোরগঞ্জ ট্রেনের ভাড়ার তালিকা নিচে শেয়ার করা হলো।

আসন বিভাগ টিকিটের মূল্য
শোভন ১২৫ টাকা
শোভন চেয়ার ১৫০ টাকা
প্রথম আসন ২০০ টাকা
প্রথম বার্থ ৩০০ টাকা
স্নিগ্ধা ২২৮টাকা
এসি ৩৪৫ টাকা
এসি বার্থ ৫১৮টাকা

ঢাকা টু কিশোরগঞ্জ টিকেট

ঢাকা থেকে কিশোরগঞ্জ রুটে চলাচল করি ট্রেনগুলো প্রতিনিয়ত যাত্রীদের ট্রেন সেবা দিয়ে আসতেছে। এগারো সিন্ধুর গোধূলি এগারো সিন্ধুরপ্রভাতী এবং কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস এই ট্রেন তিনটি ঢাকা কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে ছেড়ে কিশোরগঞ্জ এবং পরবর্তীতে কিশোরগঞ্জ থেকে ঢাকা কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে পৌঁছানোর জন্য যাত্রীদের সেবা দিয়ে আসতেছে। ট্রেন গুলো অনেক বিলাসবহুল শান্তিপূর্ণ ও আরামদায়ক। ট্রেনটা এর প্রশাসনিক কাঠামো অনেকটা উন্নত এবং আসন ব্যবস্থা অনেক ভালো।
কিশোরগঞ্জ থেকে ঢাকার দূরত্ব ১০৮ কিলোমিটার হয় এই দূরত্বে আমরা ট্রেন ভ্রমণ অনেক আরামদায়ক এবং শান্তিপূর্ণভাবে এসব ট্রেনে করতে পারি। কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে কিশোরগঞ্জ যাতায়াতের জন্য এসব ট্রেন নির্ভরযোগ্য ও নিরাপদ। কমলাপুর রেল স্টেশন থেকে কিশোরগঞ্জ উদ্দেশ্যে আমাদেরকে কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে টিকিট কাউন্টারে গিয়ে টিকিট ক্রয় করতে হবে অথবা আমরা অনলাইনে টিকিট সংগ্রহ করতে পারব। রেলওয়ে মন্ত্রণালয় কর্তৃক রেল পরিষেবা ওয়েবসাইটে গিয়ে আমরা অনলাইনে এগারো সিন্ধুর প্রভাতী এগার সিন্ধুর গোধূলি এবং কিশোরগঞ্জ এক্সপ্রেস এর টিকিট ক্রয় করতে পারব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *