ভ্রমণ

যশোর টু কক্সবাজার বিমান ভাড়া

আপনি কি যশোর টু কক্সবাজার বিমান ভাড়া অনুসন্ধান করছেন? তাহলে এই অনুচ্ছেদ আপনাকে স্বাগতম। আমরা এই অনুচ্ছেদে যশোর টু কক্সবাজার বিমান ভাড়া ও যশোর টু কক্সবাজার বিমানের সময়সূচি টিকিট কাটার প্রক্রিয়া আলোচনা করবো। তাই আপনারা যারা যশোর টু কক্সবাজার যাওয়ার কথা ভাবছেন তাদের জন্য এই অনুচ্ছেদটি অনেক সাহায্য করবে।

এখন শুধুমাত্র এক ঘন্টা দশ মিনিটের যশোর থেকে কক্সবাজার বিমান করে ভ্রমণ করা সম্ভব। এতদিন যশোর থেকে কক্সবাজার যাওয়ার জন্য যাত্রীদের প্রথমে ঢাকা যাওয়া লাগত। তারপর ঢাকা থেকে চট্টগ্রামের বিমানে করে যেতে হতো। কিন্তু সম্প্রীতি সময়ে বেইমান কর্তৃপক্ষ যশোর থেকে সরাসরি চট্টগ্রামে বিমান পরিচালনা শুরু করেছে। এর ফলে যশোরে অবস্থিত যে সকল পর্যটক চট্টগ্রামে ভ্রমণ করতে চাচ্ছেন তারা যশোর থেকে সরাসরি চট্টগ্রামে বিমানে করে যাওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন।

বাংলাদেশের পশ্চিমবঙ্গের জেলা যশোর থেকে সরাসরি বন্ধর নগরীর চট্টগ্রামে বিমান পরিচালনা শুরু করেছে। বাংলাদেশ সিভিল অ্যাসোসিয়েশন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে যশোর থেকে সরাসরি চট্টগ্রামের বিমান পরিচালনা করবে। যাত্রীর পরিবহনের একমাত্র বিমান পরিধান সংস্থার নাম ইউ এস বাংলা। ২০১৪ সালে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স ১৫০ জন স্টাফ নিয়ে যাত্রা শুরু করলেও বর্তমানে এই সংস্থাটির 16 টি ব্রান্ড এয়ারক্রাফ্ট রয়েছে। যশোর থেকে চট্টগ্রাম বিমান পরিচালনার উদ্বোধন করেন মাননীয় মন্ত্রী জনাব মাহবুবুল আলী।

যশোর টু কক্সবাজার বিমানের সময়সূচী

যশোর টু কক্সবাজার বিমানের ফ্লাইট পরিচালনা করবে শুধু মাত্র ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স সপ্তাহে প্রতিদিন এই রুটে একটি করে পরিচালনা করে।

Related Articles

প্রাথমিকভাবে রবি, মঙ্গল ও বৃহস্পতিবার যশোর থেকে সকাল ৯টা ১৫ মিনিটে চট্টগ্রামের উদ্দেশে এবং একই দিন বিকেল ৫টা ১০ মিনিটে চট্টগ্রামের হযরত শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে যশোরের উদ্দেশে যাত্রার সময় নির্ধারণ করা হয়েছে।

শনি, সোম, বুধ ও শুক্রবার যশোর থেকে দুপুর ১টা ৪৫ মিনিটে কক্সবাজারের উদ্দেশে এবং কক্সবাজার থেকে বিকেল ৩টা ২৫ মিনিটে যশোরের উদ্দেশে যাত্রার সময় নির্ধারণ করা হয়েছে।

যশোর টু চট্টগ্রাম বিমানের ভাড়ার তালিকা

আপনি চাইলে যশোর টু চট্টগ্রাম বিমানের টিকিট করায় করার সময় একসাথে দুইটি টিকিট অর্থাৎ রিটার্ন টিকিট একসাথে করে নিতে পারবেন। সে ক্ষেত্রে রিটার্ন টিকিট সহ মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১২০০০-১৩০০০ টাকা। সকল প্রকার ট্যাক্স ও সারচার্জসহ যশোর থেকে চট্টগ্রামে ওয়ানওয়ের ন্যূনতম ভাড়া ৬,০০০ টাকা এবং রিটার্ন ভাড়া ১২,০০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

এছাড়া যশোর থেকে কক্সবাজারে ওয়ানওয়ের ন্যূনতম ভাড়া ৬,৫০০ টাকা এবং রিটার্ন ভাড়া ১৩,০০০ টাকা; সৈয়দপুর থেকে চট্টগ্রামের ওয়ানওয়ের ন্যূনতম ভাড়া ৬,২০০ টাকা এবং রিটার্ন ভাড়া ১২,৪০০ টাকা ঠিক করা হয়েছে।

বিমান ভ্রমণে কিছু তথ্য

আপনি যখন আন্তর্জাতিক বিমান বহন করবেন তখন টিকিটের সাথে আপনার পাসপোর্ট এবং ভিসা সংযুক্ত করা লাগবে। কিন্তু বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ রোড গুলোতে বিমান ভ্রমণ ে পাসপোর্ট এবং ভিসার ঝামেলা থাকছে না। সেক্ষেত্রে আপনি শুধুমাত্র টিকিট করাই করলেই চলবে।

টিকিট করা এর জন্য বাংলাদেশের বিভিন্ন এজেন্সির ওয়েবসাইট রয়েছে সেগুলো থেকে সরাসরি টিকিট ক্রয় করতে পারবেন। এছাড়াও ইউএস-বাংলার অফিসিয়াল ওয়েবসাইট হতে টিকিট ক্রয় করা যেতে পারে। যশোর টু চট্টগ্রাম রোডের টিকিট সব সময় এবেলেবল থাকে তাই আপনি যেকোনো সময় টিকেট সংগ্রহ করতে পারেন।

বিমান বহনে একজন যাত্রী সর্বোচ্চ ২০ কেজি পর্যন্ত মালামাল সঙ্গে রাখতে পারে। সে ক্ষেত্রে আপনি যদি কোন জীবন্ত প্রাণী বিমানে করে পরিবহন করতে চান আপনাকে অবশ্যই প্রাণিসম্পদের অনুমতি পত্র লাগবে। এছাড়াও আপনার প্রাণীটি ভ্যাকসিনেট কিনা সেই তথ্য বিমান কর্তৃপক্ষকে প্রদান করতে হবে। সেক্ষেত্রে আপনার অতিরিক্ত কিছু চার্জ করা হতে পারে।

এতক্ষণ মনোযোগ দিয়ে আমার এই নিবন্ধটি পড়ার জন্য আপনাকে স্বাগতম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *