টিপস

স্কুল জীবন নিয়ে স্ট্যাটাস, উক্তি, কবিতা ও ক্যাপশন

সম্মানিত সুধী, আজকের এই অনুচ্ছেদে আমরা স্কুল জীবনের স্মৃতি স্মরণ করে আপনাদের সামনে স্কুল জীবনের স্ট্যাটাস, স্কুল জীবনের কবিতা, স্কুল লাইফ নিয়ে ক্যাপশন এবং স্কুল লাইফের কিছু উক্তি শেয়ার করব। তাই আপনারা যারা স্কুল জীবন স্মৃতিচারণ করে কিছু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে শেয়ার করতে চাচ্ছেন তাদের জন্য আমার এই অনুচ্ছেদটি। আশা করি এই অনুচ্ছেদটি আপনাদের ভালো লাগবে। আমরা আপনাদের জন্য আমাদের এই অনুচ্ছেটি অত্যন্ত সতর্কতার সাথে তৈরি করার চেষ্টা করেছি।

স্কুল জীবন মানে হলো একটি প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পড়াশোনার জীবন। এটি ছাত্রদের বয়সের শুরুতে শুরু হয় এবং স্কুল সমাপ্ত হওয়া পর্যন্ত চলে। এটি প্রাথমিক শিক্ষার ভিত্তিতে গড়ে তোলা হয় এবং একটি মৌলিক শিক্ষামূলক প্রতিষ্ঠান।স্কুলের জীবনে ছাত্ররা পড়াশুনার বিভিন্ন কাজ সম্পাদন করে থাকেন, যেমন ক্লাস এটেন্ড করা, পাঠ পরিচালনা, পরীক্ষা দেওয়া, বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করা ইত্যাদি। ছাত্রদের সমস্যা নির্ণয় করা হয় এবং উপযুক্ত পরামর্শ দেয়া হয় যাতে তারা ভবিষ্যতে সফলভাবে ব্যক্তিত্ব গড়তে পারেন।স্কুল জীবনে ছাত্রদের শিক্ষা পাওয়ার মাধ্যমে না কেবল পাঠশালার ভেতরে বর্তমান সময়ের কাজগুলো শেখানো হয়, বরং ছাত্রদের সামাজিক ও চারিত্রিক বিকাশও করা হয়। ছাত্রদের মধ্যে

স্কুল জীবন নিয়ে স্ট্যাটাস

আমরা আমাদের জীবনের সবথেকে সোনালী সময়টা পার করে আসি স্কুল লাইফে। শৈশবের প্রত্যেকটি ঘটনা আমাদের মনে দাগ কেটে থাকে । আমাদের বারবার ইচ্ছে করে সোনালী সময়ের কথা। আমরা কোনভাবেই আমাদের মন থেকে আমাদের স্কুল জীবনের কথা ভুলে যেতে পারবো না। কলেজ লাইফের যতগুলো বন্ধু আমরা পাই সে সকল বন্ধু থেকে অনেক গুনে আপন মনে হয় স্কুল লাইফের বন্ধুগুলোকে। তাই স্কুল লাইফ অনেকের জীবনের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি অধ্যায়। আমরা স্কুল লাইফ নিয়ে কিছু স্ট্যাটাস আপনাদের জন্য শেয়ার করলাম।

.জীবনে যত বন্ধু আসুক না কেন স্কুল বন্ধুদের কোনদিন হারানোর নয়।

Related Articles

স্কুল জীবনের বন্ধুরা জীবনের ভূমিকা বা উৎস।

এই স্কুল শব্দ টা শুনলেই মনের ভেতরে জমে ওঠে স্মৃতির সাগর
কখনো বুকের মধ্যে শুরু হয় হাহাকার.
আবার পরক্ষনেই ঘুরপাক খায় আনন্দঘন সময়টা ।
স্কুলজীবনে স্মৃতিগুলো কখনো ভুলবার নয়।

 স্কুল জীবনের বন্ধু সার্বক্ষণিক পাশেই থাকে একটি নতুন বইয়ের প্রথম অধ্যায়ের মত স্কুল জীবনের বন্ধুরা।

জীবনের সব বন্ধুরা কোন কারণ দেখিয়ে চলে যায় কিন্তু স্কুলের বন্ধুরা সারা জীবন পাশে থাকে।

শ্রেষ্ঠ সময় ছিল স্কুল জীবনের বন্ধুদের নিয়ে কাটানো সেই সময় গুলো।

এই জীবনের অধিকাংশ মানুষের কাছে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ হলো স্কুল জীবনে বন্ধুদের নিয়ে কাটানো সময়।

স্কুলের জীবনের স্মৃতি আজও ভুলিনি ,
সবার সাথে পালিয়ে খেলতে যাওয়া
মায়ের মায়ের হাতের টিফিন খাওয়া,
সবাইকে নিয়ে এক সাথে গান গাওয়া।
সময়ের পরিক্রমায় বেড়ে উঠা।
স্কুল লাইফে  মন আজো পড়ে আছে বাঁধা।

স্কুল জীবনের বন্ধুদের সঙ্গে, হাজারো খুনসুটি ছিল বুক ভরা ভালোবাসায় ভরা।

আবার যদি আগের মত দিন ফিরে আসে তাহলে বন্ধুদের আর কোনদিন যেতে দেব না।

স্কুল লাইফ আমাদের জীবনের এক স্মৃতিচারন সময় ।
 শিক্ষা জীবনের শুরু হয়ে এই জীবনে।
 এখান থেকে আমরা গ্রহণ করে থাকি নৈতিক শিক্ষা
  এখান থেকেই জন্ম নেয় একজন ভাল মানুষ।
 এই জীবনের ব্যাখা শেষ করার মত নয়।

 

কি করে ভূলব সেই সোনালী দিনগুলো
সবার সাথে এক সাথে খেলতে যাওয়া
আর সবার সাথে চড়াই পাতি খাওয়া
এ যেন এক সোনালী দিন আর পাবোনা।

শিক্ষা মানে শুধু স্কুলে যাওয়া আর ডিগ্রী অর্জন করা নয়। এটা জ্ঞানকেও প্রসারিত করে।
– শকুন্তলা দেবী

স্কুল হলো এমন একটা জায়গা যেখানে কান্নামুখে যেতে হয় এবং কান্নামুখেই ছাড়তে হয়।
– সংগৃহীত

স্কুলে কি পড়ানো হয়েছে তা মনে থাকে না কিন্তু হৃদয়ের কোটরে স্কুলের প্রতিটি দিন চির স্মরণে থাকে।
– সংগৃহীত

একজন ব্যক্তির শিক্ষাজীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিন হলো স্কুলের প্রথম দিন, স্নাতকের প্রথম দিন নয়।
– হ্যারি ওং

পৃথিবীতে শুধুমাত্র স্কুল আর জেলই এমন দুটি জায়গা যেখানে কাজ করার জন্য সময়কে প্রাধান্য দেওয়া হয়।
– উইলিয়াম গ্লাসার।

স্কুল লাইফ নিয়ে ক্যাপশন

ধরুন আপনি বহুদিন পর আপনার সেই হাইস্কুল মাঠে গেছেন। স্বাভাবিকভাবে আপনার স্কুল মাঠের কথা স্মৃতিচারণ হবে। মনে হবে আপনার প্রিয় বান্ধবীটির কথা কিংবা মনে হবে আপনার শ্রেণিকক্ষের কথা যেখানে প্রতিটি দেয়ালের কোনায় কোনায় আপনার স্মৃতি লুকায়িত আছে। এমন সময় আপনি যদি একটি ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করতে চান তাহলে অবশ্যই একটি ক্যাপশন ব্যবহার করতে পারবেন। তাই আমি এই অনুচ্ছেদে স্কুল লাইফ নিয়ে কিছু ক্যাপশন আপনাদের জন্য শেয়ার করেছি।

যে স্কুলের দরজা খুলে দেয় সে জেলের দরজা বন্ধ করে দেয়।
– ভিক্টর গুগো

এক প্রজন্মের স্কুল কক্ষের দর্শনই হবে পরবর্তী প্রজন্মের সরকারের দর্শন।
– আব্রাহাম লিংকন

নিজেকে আবিষ্কার করা, ভুল করা এবং আজীবন বন্ধু বানানোর কারিগর স্কুল।
– সংগৃহীত

স্কুল যা শেখায় তা ভুলে যাওয়ার পরে যা অবশিষ্ট থাকে তা হলো শিক্ষা।
– আলবার্ট আইন্সটাইন

শিক্ষার্থীর শেষ গন্তব্য গ্রন্থাগার না হলে স্কুলে গিয়ে কোনো লাভ নেই।
– রে ব্রাডবেরি

কৃষকদের শিক্ষিত করার জন্য তিনটি জিনিসের প্রয়োজনঃ স্কুল, স্কুল এবং স্কুল।
– লিও টলস্টয়

শিক্ষা শুরু হয় বাড়িতে তাই শুরুতে সন্তানের যেটা নাই তার জন্য স্কুলকে দোষ দিবেন না।
– জিওফ্রে হোল্ডার

ইতিহাসই একমাত্র প্রকৃত শিক্ষক আর বিপ্লব সর্বহারা শ্রেণীর জন্য শ্রেষ্ট স্কুল।
– রোজা লুক্সেমবার্গ

স্কুল হলো ভবিষ্যতের জন্য অনুশীলন এবং এই অনুশীলন ব্যক্তিকে নিখুঁত করে তোলে।
– বিলি জো আর্মস্ট্রং

স্কুল অনেকটা টয়লেট পেপারের মতো। যা চলে গেলেই আপনি মিস করবেন।
– সংগৃহীত

পৃথিবীতে নিরপরাধ মানুষের জন্য স্কুলের মতো ভয়ঙ্কর আর কিছু নেই।
– জর্জ বার্নার্ড শ

স্কুল লাইফ নিয়ে উক্তি

পৃথিবীতে যত জ্ঞানী-গুণী মনীষীগণ আছেন তাদের সবার জীবনে স্কুল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি অধ্যায় ছিল। আমরা এই অনুচ্ছেদে স্কুল লাইফ নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ কিছু উক্তি আপনাদের সাথে শেয়ার করার চেষ্টা করব। আশা করি আমার এই উক্তিগুলো আপনাদের পছন্দ হবে এবং আমার এই উক্তিগুলো আপনাদের পছন্দ হয়ে গেলে এখান থেকে শেয়ার করে নিতে পারবেন।

স্কুল শেষ নয়, শিক্ষার শুরু মাত্র।
– ক্যালভিন কুলিজ

প্রতিদিনই স্কুলের প্রথম দিন।
– ড.এডোয়ার্ডো জেলোনি ম্যাগেলি

স্কুল লাইফের বন্ধুরা মিশে থাকে অমলিন।
– সংগৃহীত

স্কুলের সময় শেষ হয় কিন্তু স্মৃতি থাকে চিরকাল।
– সংগৃহীত

গৃহ হলো মানবিক গুণাবলী অজর্নের প্রধান স্কুল।
– উইলিয়াম এলিরি চ্যানিং

স্কুলের সবচেয়ে বড় সম্পদ হলো শিক্ষকের ব্যক্তিত্ব।
– জন স্ট্রাচান

জীবনের সবচেয়ে কাছের বন্ধুরা স্কুল থেকেই হয়।
– পেটন ম্যানিং

স্নাতক সম্পূর্ণ হওয়ার পরেও স্কুলে যাওয়া বন্ধ হয় না।
– ক্যারল বার্নেট

স্কুল মানে আবেগের এক ফালি ডালি যার ছুটে চলা নিরন্তর।
– সংগৃহীত

স্কুল জীবন নিয়ে কবিতা

আপনি যদি আপনার স্কুল লাইফ স্মৃতিচারণ করে একটি কবিতা লিখতে চান তাহলে আমরা এই অনুচ্ছেদের মাধ্যমে আপনাকে সাহায্য করতে পারবো। আমরা এই অনুচ্ছেদে কতগুলো স্কুল জীবনের কবিতা সংযুক্ত করেছি যেগুলো আপনি পরে এখান থেকে ধারনা নিতে পারেন।

নেই সেই মধুর স্কুল জীবন

– মুঃ ওয়াহিদ সাদিক – অগোছালো কবিতাগুলি

কতনা হাসিমাখা দৌড়ানির মাঝে ,
দুঃখের কথা না ভেবে ,
শেষ করে দিলাম স্কুলজীবন ।।

কত বন্ধু বান্ধবী ,কত দুষ্টমি ,
কত আড্ডা, কত গল্প ,
আবার টেবিলে হাত ডোল দিয়ে ,
কতনা গেয়েছি গান ….
কত উসকানী কথা ,কত রাগ ,
ফাকিবাজীর মাঝে নিরব অভিমান ।।

হঠাত্‍ করে মাঝের মধ্যে কেমন বদলে যেতাম আমি ,
এই জীবনের শেষের দিকে হঠাত্‍ পাগলামী ।।

কার পানে যে ,কার মোহে যে আমার পাগলামী ,
কার মনে যে কার মিলন ,কত হয়রানী ।।

বন্ধুরা সব পাগল করে ,কত প্রশ্ন করে ,
কার সাথে বুঝি হল প্রেম ,
কার সাথে মন চুরি . . .
আমাদের না বলে যখন এতই ভালবাসা ,
তবে আর আমি বন্ধু নয় ,আর নয় কাছে আসা . . .

আমাদের না বলে ,আমাদের না জানিয়ে ,
এমন করলি তুই কেমনে …
নানান রকম প্রশ্ন ,আর কত অভিমান ,
বন্ধু মানে এসবের মিল ,
চায়ের দোকানে নাস্তার পব বলি .দিবি কি চায়ের বিল ।।

বন্ধু মানে ফোনের মাঝে অগোছালো যত কথা ,
বন্ধু মানে এক মুহূর্ত না পেলে কতনা ব্যাথা . . .

বন্ধু মানে যা করি ,বলতেই হবে ,
প্রেম করি কিংবা কারো করি পছন্দ ,
করি যা হৌক ভাল কিংবা মন্দ ।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *